ফ্রি

জিফটোস্পেসে ছবি রাখা

সেবাটি গুগলের না হলেও যাদের গুগলে একাউন্ট আছে তারা জিফটোস্পেসের জিমেইলের সমপরিমান যায়গায় ছবি রাখতে এবং শেয়ার করতে পারবে। এজন্য ৬.৮ মেগাবাইটের সফটওয়্যারটি www.gphotospace.com থেকে ডাউনলোড করে ইনস্টল করুন। ফায়ারফক্স ব্যবহারকারীরা এ্যাড-অন্স (উইন্ডোজ এবং ম্যাক) ইনস্টল করেও ব্যবহার করতে পারবেন। এবার জিফটোস্পেসের (ফায়ারফক্স হলে Tools

ভিএলসি মিডিয়া প্লেয়ারে সবই চলবে

কম্পিউটারে অডিও ভিডিও গান শোনার জন্য আমরা বিভিন্ন মিডিয়া প্লেয়ার ব্যবহার করি। কিন্তু একটি প্লেয়ারে সব ফরম্যাটের গান চলে না। বিশেষ করে 3GP, MP4, MOV, FLV, ASF, AVI, WMV, WMA, AAC, AVI, MIDI, SVCD এ ধরনের ফরম্যাটগুলো সাধারণ মিডিয়া প্লেয়ারে চলে না। ফলে আলাদা

অনলাইনে টাইপিং শিখুন

কম্পিউটার ব্যবহার করেন অথচ যথা নিয়মে টাইপিং করতে পারেন না এমন ব্যবহারকারীর সংখ্যাই বেশী। বিভিন্ন কারণে প্রাতিষ্ঠানিকভাবে টাইপিং শেখা হয়ে ওঠে না। নিয়ময়ানুগভাবে টাইপিং করতে পারলে যেমন নির্ভূল হয় তেমনই গতিও বেশী হয়। টাইপিং শেখা বা অনুশীলন করা জন্য বেশ কিছু ভাল সফটওয়্যার আছে। তবে সফটওয়্যার ছাড়াও অনলাইনেই টাইপিং

নিজেই তৈরী করুন ইনস্টলার

ধরুন আপনি ছোট কোন সফটওয়্যার তৈরী করেছেন অথবা চাচ্ছেন এক গুচ্ছ ফন্ট ইনস্টল করার ইনস্টলার তৈরী করতে। এধরনের ইনস্টলার তৈরী করতে পারবেন ফ্রি, ওপেনসোর্স NSIS (Nullsoft Scriptable Install System) সফটওয়্যার দ্বারা। মাত্র ১.৫১ মেগাবাইটের এই সফটওয়্যাটি

দেখে নিন হার্ডডিক্সের বর্তমান অবস্থা

অনেক দিন ধরে হইতো কম্পিউটারের হার্ডডিক্স ব্যবহার করছেন কিন্তু হার্ডডিক্সের বর্তমান অবস্থা কি তা জানা যাবে Active Hard Disk Monitor দ্বারা। এই সফটওয়্যারটি দ্বারা হার্ডডিক্স প্রস্তুতকারক কোম্পানী, সিরিয়াল নম্বরসহ অনান্য তথ্য এবং S.M.A.R.T. (Self-Monitoring, Analysis, and Reporting Technology)

পিডিএফকে ওয়ার্ড এবং এক্সেলে রূপান্তর করা

অনেক সময় পিডিএফ ফাইলকে মাইক্রোসফট ওয়ার্ড বা এক্সেলে রূপান্তর করার প্রয়োজন হয়। এর মধ্যে www.hellopdf.com সফটওয়্যার দ্বারা পিডিএফ ফাইলকে মাইক্রোসফট ওয়ার্ডে রূপান্তর করা যায়। কিন্তু লেখাগুলো বক্সে আসে ফলে বেশ অসুবিধা হয়। অনলাইন থেকে বিনামূল্যে আপনি পিডিএফ ফাইলকে মাইক্রোসফট

এক্সপির জন্য উইন্ডোজ ৭ এর সুপার বার

উইন্ডোজ এক্সপির পরে উইন্ডোজ ভিসতা এবং সমপ্রতি উইন্ডোজ ৭ বাজারে এসেছে। কিন্তু উইন্ডোজ এক্সপি ব্যবহার তেমন একটা ভাটা পরেনি। তাই উইন্ডোজ ভিসতার বা উইন্ডোজ ৭ এর কিছু কিছু সুবিধা এক্সপির জন্য আসে। উইন্ডোজ ৭ এর মত টাক্সবার বানাতে পারবেন উইন্ডোজ এক্সপিতেও। এজন্য ViGlance সফটওয়্যারটি চালু

ব্লগে মন্তব্যের সাথে নিজের ছবি যোগ করা

বর্তমানে ব্লগ খুবই জনপ্রিয়। ব্লগে কেউ মন্তব্য করলে তার ছবি যুক্ত হয়ে যায় সয়ংক্রিয়ভাবে। কিন্তু কিভাবে? যাদের www.gravatar.com সাইটে একাউন্ট আছে এবং উক্ত একাউন্টে ছবি যুক্ত করা আছে তারা গ্রাভতার সক্রিয় আছে এমন ব্লগসাইটে মন্তব্য করলে মন্তব্যের সাথে তার (মন্তব্যকারীর) ছবি যুক্ত হবে। গ্রাভতারে যে ইমেইল

বহনযোগ্য এ্যাপলিকেশন ম্যানেজ করুন

বর্তমানে বহনযোগ্য বা পোর্টেবল সফটওয়্যার বা এ্যাপলিকেশন বেশ জনপ্রিয়। ইনস্টল করার ঝামেলা না থাকায় ফ্লাশ ডিক্সে বা এধরনের রিমুভাল ডিক্সে এধরনের সফটওয়্যার রেখে অনায়াসে চালানো যায়। আপনি চাইলে পোর্টেবল সফটওয়্যারগুলোকে মেনু হিসাবে সাজিয়ে রাখতে পারেন। www.portableapps.com এর

ফাইল ফোল্ডারের হিসাব দেখুন স্পেস স্নিফারে

আমরা যে ফাইল বা ফোল্ডার রাখি সেগুলো কোথায় কি অবস্থায় আছে তা দেখার দারুন এক সফটওয়্যার হচ্ছে স্পেস স্নিফার। ফ্রি এই সফটওয়্যার দ্বারা আপনি ড্রাইভে থাকা ফাইল এবং ফোল্ডারের চিত্র দেখতে পারবেন। এছাড়াও উক্ত ফাইল বা ফোল্ডার ক্লিক করে খুলতে